Dhaka , Thursday, 13 June 2024
নিবন্ধন নাম্বারঃ ১১০, সিরিয়াল নাম্বারঃ ১৫৪, কোড নাম্বারঃ ৯২
শিরোনাম ::
জনপ্রিয়তা ঈর্ষান্বিত হয়ে প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী রফিক আমার নামে মিথ্যাচার চালাচ্ছে- আবুল বাশার  বাদশা।। নিখোঁজের দুদিন পর মাদরাসা ছাত্রের মরদেহ মিলল ঘাটলার নিচে।। ঝালকাঠিতে হত্যা মামলায় সাবেক ইউপি চেয়ারম্যানসহ ৪ জনের যাবজ্জীবন।। সুন্দরগঞ্জে পশুর হাট নিয়ে পুলিশ-জনতা সংঘর্ষে ৩ রাউন্ড গুলি বিনিময়- পুলিশসহ আহত ১০।। নোয়াখালীতে পানিতে ডুবে দুই বোনের মৃত্যু।। পাবনায় শ্যালো ইঞ্জিনচালিত নছিমন নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ২ জন নিহত আহত -৭ জন।। রূপগঞ্জ কাঞ্চন পৌরসভা নির্বাচনে মেয়র প্রার্থী রফিক সমর্থকদের উপর হামলা।। ৩৬ দিন পর যুবকের লাশ উত্তোলন- ইউপি চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে হত্যা মামলা দায়ের।। শিবচরে আগুনে ১৩ গরু মারা গেছে।। দাবি হামার একটাই ঠাকুরগাঁওয়ে বিমানবন্দর ও মেডিকেল কলেজ চাই।। ঈদ উপলক্ষ্যে হিলিতে প্রধানমন্ত্রীর উপহার হিসাবে ভিজিএফের চাল বিতারণ।। প্রভাবশালীরা সরকারী হাটের জায়গা দখল করে দোকান ঘর নির্মাণ-হাট বসছে মহাসড়কের দুই পার্শ্বে।। রাজমিস্ত্রী ছাড়াই পাবনার তাওহীদ তৈরি করেছেন দৃষ্টিনন্দন দোতলা বাড়ি।। সদরপুরে রাসেল ভাইপার আতঙ্ক- ছয় মাসে ৫ জনের মৃত্যু।। চাঁদাবাজিতে অতিষ্ঠ কদমতলী – ফেসবুকে স্ট্যাটাস দিয়ে নারীর বিষপান।। রাজাপুরে মাঠ দিবস ও কারিগরী আলোচনা অনুষ্ঠিত।। ঝালকাঠিতে ভূমিহীন ও গৃহহীন পরিবারকে জমি ও গৃহ হস্তান্তর।। রূপগঞ্জে ভুল চিকিৎসায় প্রসুতির মৃত্যু।। রূপগঞ্জ উপজেলা পরিষদের উন্মুক্ত বাজেট ঘোষণা।। তিতাসে পরীক্ষার ফলাফল ঘোষণা উপলক্ষ্যে মা সমাবেশ অনুষ্ঠিত।। তিতাসে আইনশৃঙ্খলা কমিটির মাসিক সভা অনুষ্ঠিত।। বিশ্বকাপ উন্মাদনায় মেতেছে ওরাও।। রূপগঞ্জে মেয়র প্রার্থীর পোষ্টার ছিঁড়ে ফেলার অভিযোগ।। মোরেলগঞ্জের ৫০ পরিবার পেলো মাথাগোঁজার ঠাই।। রামগঞ্জের লামনগর সমবায় সমিতির অফিসে দুধর্ষ চুরি- ৫ লক্ষাধিক টাকা লুটে নিয়েছে চোরেরা।। প্রধানমন্ত্রী কর্তৃক সদরপুরে জমি ও গৃহ হস্তান্তর কার্যক্রমের শুভ উদ্বোধন।। শরীয়তপুরের জাজিরাকে ভূমিহীন ও গৃহহীনমুক্ত ঘোষনা।। ঠাকুরগাঁয়ে ১শ বোতল ফেনসিডিল সহ গ্রেফতার শিশু।। পাবনায় ফের কবরস্থান থেকে কঙ্কাল চুরি হিড়িক।। গাজীপুরে অবৈধ গ্যাস সংযোগ বিচ্ছিন্ন- ৪ জনকে টাকা জরিমানা।।

তীব্র দাবদাহে নাজেহাল কমলগঞ্জ শ্রীমঙ্গল মৌলভীবাজারের জনজীবন।।

  • Reporter Name
  • আপডেট সময় : 01:13:07 pm, Friday, 24 May 2024
  • 17 বার পড়া হয়েছে

তীব্র দাবদাহে নাজেহাল কমলগঞ্জ শ্রীমঙ্গল মৌলভীবাজারের জনজীবন।।

মো.সাইদুল ইসলাম
কমলগঞ্জ (মৌলভীবাজার) প্রতিনিধি।।

সূর্যোদয় থেকে সূর্যাস্ত পর্যন্ত সারাদেশের ন্যায় তীব্র দাবদাহে বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে মৌলভীবাজার কমলগঞ্জ শ্রীমঙ্গলের জনজীবন। শুধু তাই নয়, রাতেও ভ্যাপসা গরমে হাঁপিয়ে উঠছেন জেলার মানুষ। দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে গরমের স্বস্তি পেতে এ জেলায় হাজার হাজার পর্যটকের আনাগোনা হয়ে থাকে। চলতি বছরের মে থেকে শুরু হওয়া তাপপ্রবাহ দেশের বিভিন্ন জেলার ওপর দিয়ে বয়ে গেলেও এ জেলার মানুষ অনেকটাই স্বস্তিতে ছিল।

শুক্রবার (২৪ মে) বিকাল ৩ টায় জেলার তাপমাত্রা ছিল ৩৬.৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস। চলমান এ তাপমাত্রা শনিবার থেকে কমতে শুরু করবে বলে জানিয়েছে শ্রীমঙ্গল আবহাওয়া অফিস। তবে গত ১৫ দিন ধরে এ জেলায় ৩৬-৩৭.৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস উঠানামা করছে।

এদিকে জেলা ঘুড়ে দেখা যায় অসহ্য গরমে কৃষি মাঠে, রিকশা ও বিভিন্ন ধরনের ছোট খাট গাড়ি চালকরা রাস্তায় বের হওয়া মানুষের হাঁসফাঁস অবস্থা। এ অবস্থায় মানুষের জীবনযাত্রা দুর্বিষহ হয়ে উঠছে। রাস্তায় বের হলে যেন চোখে-মুখে আগুনের তাপ লাগছে। গরমের কারণে রাস্তায় যানবাহন এবং সাধারণ মানুষের সংখ্যা কম দেখা গেছে।

কমলগঞ্জ এর আলীনগরের দিনমুজুর জলাল মিয়া ও প্রেমানন্দ দেব নাথ বলেন, ‘এই গরমে কষ্ট হলেও সংসারের কথা চিন্তা করে প্রতিদিন কাজে আসতে হয়। কাজে না আসলে সংসারের সবার না খেয়ে থাকতে হবে। আমাদের একা রুজিতে চলে সংসার।’

কৃষক রহমান শাকিল জানান, ‘এত দিন খুব বেশি গরম ছিল না। কিছুদিন থেকে অতিরিক্ত গরম পড়েছে। রোদটা সরাসরি গায়ে লেগে শার্টটা বা গেন্জী থাকলে ঘামে ভিজে গেছে। গরমের কারণে এক টানা ৩০ মিনিটও কাজ করতে পারি না। গরমে একেবারে ক্লান্ত হয়ে যাই। কিন্তু পেটের টানে তো বের হতে হয়।’

গরমে সন্তানদের নিয়ে হাঁপিয়ে উঠেছেন গৃহবধূ নাজমা আক্তার। তিনি বলেন, বাচ্চারা ঘরের বাইরে বের হতে চাচ্ছে না। লেখাপাড়াও ব্যাহত হচ্ছে।

এদিকে শ্রীমঙ্গলের আনারস,লেবু ও নাগামরিচ চাষি সামছুল হক জানান, গরম ও পানির কারনে ফসল ভালো ভাবে পরিচর্যা করতে পারছি না। অনেক ফসল নষ্ট হওয়ার উপক্রম।

শ্রীমঙ্গল আবহাওয়া পর্যবেক্ষণ কেন্দ্রের সহকারী আবহাওয়াবিদ আনিসুর রহমান বলেন, ‘চলমান পরিস্থিতি আর হয়তো থাকবে না। আগামীকাল শনিবার থেকে নিন্ম চাপের কারনে বৃষ্টি হতে পারে। তখন আর এই তাপমাত্র থাকবে না।’

নোট: ছবি সংযুক্ত। ফাইল ছবি। রোদে কিছুটা স্বস্তির খোঁজে মৌলভীবাজার জেলার কমলগঞ্জ উপজেলার শমশেরনগর গল্ফ মাঠ লেকে গোসল আর পানিতে শিশুদের খেলায় মেতে ওঠার চিরচেনা দৃশ্য

আপনার মতামত লিখুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল ও অন্যান্য তথ্য সঞ্চয় করে রাখুন

জনপ্রিয় সংবাদ

রূপগঞ্জে বস্ত্র ও পাটমন্ত্রীর নির্দেশে নির্মিত চার সড়কের উদ্বোধন।।

পেকুয়ায় বেড়িবাঁধ ভেঙে লোকালয়ে প্লাবিত,২ শত পরিবার পানিবন্দী।।

জনপ্রিয়তা ঈর্ষান্বিত হয়ে প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী রফিক আমার নামে মিথ্যাচার চালাচ্ছে- আবুল বাশার  বাদশা।।

তীব্র দাবদাহে নাজেহাল কমলগঞ্জ শ্রীমঙ্গল মৌলভীবাজারের জনজীবন।।

আপডেট সময় : 01:13:07 pm, Friday, 24 May 2024

মো.সাইদুল ইসলাম
কমলগঞ্জ (মৌলভীবাজার) প্রতিনিধি।।

সূর্যোদয় থেকে সূর্যাস্ত পর্যন্ত সারাদেশের ন্যায় তীব্র দাবদাহে বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে মৌলভীবাজার কমলগঞ্জ শ্রীমঙ্গলের জনজীবন। শুধু তাই নয়, রাতেও ভ্যাপসা গরমে হাঁপিয়ে উঠছেন জেলার মানুষ। দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে গরমের স্বস্তি পেতে এ জেলায় হাজার হাজার পর্যটকের আনাগোনা হয়ে থাকে। চলতি বছরের মে থেকে শুরু হওয়া তাপপ্রবাহ দেশের বিভিন্ন জেলার ওপর দিয়ে বয়ে গেলেও এ জেলার মানুষ অনেকটাই স্বস্তিতে ছিল।

শুক্রবার (২৪ মে) বিকাল ৩ টায় জেলার তাপমাত্রা ছিল ৩৬.৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস। চলমান এ তাপমাত্রা শনিবার থেকে কমতে শুরু করবে বলে জানিয়েছে শ্রীমঙ্গল আবহাওয়া অফিস। তবে গত ১৫ দিন ধরে এ জেলায় ৩৬-৩৭.৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস উঠানামা করছে।

এদিকে জেলা ঘুড়ে দেখা যায় অসহ্য গরমে কৃষি মাঠে, রিকশা ও বিভিন্ন ধরনের ছোট খাট গাড়ি চালকরা রাস্তায় বের হওয়া মানুষের হাঁসফাঁস অবস্থা। এ অবস্থায় মানুষের জীবনযাত্রা দুর্বিষহ হয়ে উঠছে। রাস্তায় বের হলে যেন চোখে-মুখে আগুনের তাপ লাগছে। গরমের কারণে রাস্তায় যানবাহন এবং সাধারণ মানুষের সংখ্যা কম দেখা গেছে।

কমলগঞ্জ এর আলীনগরের দিনমুজুর জলাল মিয়া ও প্রেমানন্দ দেব নাথ বলেন, ‘এই গরমে কষ্ট হলেও সংসারের কথা চিন্তা করে প্রতিদিন কাজে আসতে হয়। কাজে না আসলে সংসারের সবার না খেয়ে থাকতে হবে। আমাদের একা রুজিতে চলে সংসার।’

কৃষক রহমান শাকিল জানান, ‘এত দিন খুব বেশি গরম ছিল না। কিছুদিন থেকে অতিরিক্ত গরম পড়েছে। রোদটা সরাসরি গায়ে লেগে শার্টটা বা গেন্জী থাকলে ঘামে ভিজে গেছে। গরমের কারণে এক টানা ৩০ মিনিটও কাজ করতে পারি না। গরমে একেবারে ক্লান্ত হয়ে যাই। কিন্তু পেটের টানে তো বের হতে হয়।’

গরমে সন্তানদের নিয়ে হাঁপিয়ে উঠেছেন গৃহবধূ নাজমা আক্তার। তিনি বলেন, বাচ্চারা ঘরের বাইরে বের হতে চাচ্ছে না। লেখাপাড়াও ব্যাহত হচ্ছে।

এদিকে শ্রীমঙ্গলের আনারস,লেবু ও নাগামরিচ চাষি সামছুল হক জানান, গরম ও পানির কারনে ফসল ভালো ভাবে পরিচর্যা করতে পারছি না। অনেক ফসল নষ্ট হওয়ার উপক্রম।

শ্রীমঙ্গল আবহাওয়া পর্যবেক্ষণ কেন্দ্রের সহকারী আবহাওয়াবিদ আনিসুর রহমান বলেন, ‘চলমান পরিস্থিতি আর হয়তো থাকবে না। আগামীকাল শনিবার থেকে নিন্ম চাপের কারনে বৃষ্টি হতে পারে। তখন আর এই তাপমাত্র থাকবে না।’

নোট: ছবি সংযুক্ত। ফাইল ছবি। রোদে কিছুটা স্বস্তির খোঁজে মৌলভীবাজার জেলার কমলগঞ্জ উপজেলার শমশেরনগর গল্ফ মাঠ লেকে গোসল আর পানিতে শিশুদের খেলায় মেতে ওঠার চিরচেনা দৃশ্য