Dhaka , Thursday, 30 May 2024
নিবন্ধন নাম্বারঃ ১১০, সিরিয়াল নাম্বারঃ ১৫৪, কোড নাম্বারঃ ৯২
শিরোনাম ::
শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমান এর শাহাদাত বার্ষিকী উপলক্ষে ঠাকুরগাঁওয়ে দুস্থদের মাঝে খাবার বিতরণ ও বই প্রদর্শনী।। সাতক্ষীরায় জমে উঠেছে কুরবানির পশুর হাট।। পাবনার ৩ উপজেলায় চেয়ারম্যান নির্বাচিত হলেন যাঁরা।। হত্যা করে ফেলল মেঘনা নদীতে- জেলের রক্তাক্ত মরদেহ মিলল সন্দ্বীপে।। রূপগঞ্জে মাদ্রাসার জমি রক্ষার-দাবিতে শিক্ষার্থীদের মানববন্ধন।। ডিমলায় ঝড়ে উড়ে গেল দেড় শতাধি বাড়িঘর।। রূপগঞ্জের কাঞ্চন পৌরসভা নির্বাচনে কমিশনার প্রার্থীদের মনোনয়ন পত্র জমা।। আটঘরিয়ায় টানা দ্বিতীয় বারের মত চেয়ারম্যান নির্বাচিত হলেন তানভীর- ভাইস চেয়ারম্যান মহিদুল- তহুরা।। সুন্দরগঞ্জ উপজেলা পরিষদ নির্বাচিত হলেন যারা।। জিংক ধান-বঙ্গবন্ধু -১০০ শীর্ষক কৃষক মাঠ দিবস অনুষ্ঠিত।। তিতাসে প্রয়াত রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের শাহাদাৎ বার্ষিকী পালিত।। সাংবাদিকদের মারধরের ঘটনার সপ্তাহ্ পেরিয়েছ গেলেও আসামী গ্রেফতার করেনি পুলিশ।। প্রবাসীদের সচেতন করতে হুন্ডি বিরোধী আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত।। হিলি সীমান্তে বিজিবি বিএসএফের ব্যাটালিয়ন অধিনায়ক পর্যায়ে পতাকা বৈঠক অনুষ্ঠিত।। ঘূর্নিঝড় রিমালে ক্ষতিগ্রস্ত আমতলীর বিভিন্ন এলাকায় ত্রাণ বিতরণ অব্যাহত।। মেলান্দহে দিদারুল পাশা ও মাদারগঞ্জে রায়হান রহমতুল্লাহ চেয়ারম্যান নির্বাচিত।।  নোয়াখালীতে নির্বাচনী সহিংসতায় গুলিবিদ্ধ ৫।। নোয়াখালীতে তিন উপজেলায় আওয়ামী লীগ নেতারা জয়ী।। শরীয়তপুরের ডামুড্যায় আবদুর রশিদ ও গোসাইরহাটে মোশরফ হোসেন চেয়ারম্যান নির্বাচিত।। রামগঞ্জে জমি সংক্রান্ত বিরোধে ১ জন নিহত।। তিতাসে বলগেটের ধাক্কায় সেতু ভেংগে নদীতে, জনসাধারণের চরম ভোগান্তি।। সাতক্ষীরার কালীগঞ্জে নারীর অর্ধগলিত মরদেহ উদ্ধার।। দেবহাটায় জাতীয় ভিটামিন-এ প্লাস ক্যাম্পেইন-এ্যাডভোকেসি ও পরিকল্পনা সভা।। দেবহাটা উপজেলা নির্বাচনে নবনির্বাচিতদের সংবর্ধনা।। আমতলীতে ঘূর্নিঝড়ে ক্ষতিগ্রস্ত এলাকা পরিদর্শন ও ত্রাণ বিতরণ।। রেমালের আক্রমনে মোরেলগঞ্জে ২ লক্ষাধিক মানুষ পানিবন্দী।। ৪৮ ঘন্টা বিদ্যুৎবিচ্ছিন্ন পবিপ্রবি- ভোগান্তিতে শিক্ষার্থীরা।। রূপগঞ্জে শেখ হাসিনা সরণির মূলসড়কের পরিবর্তে সার্ভিস রোডে বিআরটিসি বাস চলাচলের দাবি।। হিলিতে জাতীয় ভিটামিন এ প্লাস ক্যাম্পেইন উপলক্ষে অবহিতকরন ও পরিকল্পনা সভা অনুষ্ঠিত।। দেশের উন্নয়নে সেবাইত-পুরোহিতদের ভূমিকা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ-ধর্মমন্ত্রী।।

ইবিতে ফি সমন্বয় নিয়ে লুকোচুরি, প্রতিবাদে বিক্ষোভ মিছিল ও মানববন্ধন।।

  • Reporter Name
  • আপডেট সময় : 12:53:03 pm, Saturday, 2 March 2024
  • 28 বার পড়া হয়েছে

ইবিতে ফি সমন্বয় নিয়ে লুকোচুরি, প্রতিবাদে বিক্ষোভ মিছিল ও মানববন্ধন।।

ইবি প্রতিনিধি।।

২০১৭-১৮ শিক্ষাবর্ষে শিক্ষার্থীদের ফি প্রায় চার গুণ বৃদ্ধি করে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় (ইবি) প্রশাসন। পরবর্তীতে শিক্ষার্থীদের আন্দোলনের মুখে বিশ শতাংশ ফি কমিয়ে তা পরের সেশনে সমন্বয় করার প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়। নির্দেশনা অনুযায়ী সমন্বয় করে ফি প্রদান করেন ২০১৭-১৮ ও ১৮-১৯ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থীরা। তবে চতুর্থ বর্ষ শেষে শিক্ষার্থীরা সনদ তুলতে গেলে বাঁধে বিপত্তি। ফি সমন্বয়ের প্রজ্ঞাপনের বিষয়টি তোয়াক্কা করছে না একাডেমিক শাখা। ফলে সমন্বয়কৃত ফি পুনরায় পরিশোধ করে সনদ নিতে হচ্ছে শিক্ষার্থীদের। এছাড়া বিভিন্ন সময়ে শিক্ষার্থীদের প্রদত্ত ফি একাডেমিক শাখার খাতায় না তোলায় একই ফি আবারো প্রদান করতে হচ্ছে বলেও অভিযোগ রয়েছে।

শনিবার (২ মার্চ) সকাল ১০টায় ফি নিয়ে কর্তৃপক্ষের এসব অনিয়মের প্রতিবাদে প্রশাসন ভবনের সামনে মানববন্ধন করেছে ২০১৭-১৮ ও ২০১৮-১৯ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থীরা। পরে বিশ^বিদ্যালয়ের দায়িত্বরত উপাচার্য ও কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক ড. আলমগীর হোসেন ভূঁইয়ার কাছে তিন দফা দাবিতে স্মারকলিপি জমা দেন তারা।

শিক্ষার্থীদের দাবিগুলো হলো- প্রজ্ঞাপন অনুযায়ী ফি সমন্বয় করা, ইতোমধ্যে যারা অতিরিক্ত ফি জমা দিয়েছে তাদের টাকা মাস্টার্সে সমন্বয় করা এবং জমাকৃত ফি একাডেমিক শাখার খাতায় লিপিবদ্ধ না করার বিষয়ে সংশ্লিষ্টদের জবাবদিহিতার আওতায় আনা।

মানববন্ধনে শিক্ষার্থীরা বলেন, ২০১৯ সালে তৎকালীন প্রশাসন তীব্র আন্দোলনের মুখে বর্ধিত ফি ২০ শতাংশ সমন্বয়ের ঘোষণা দিয়ে প্রজ্ঞাপন জারি করে। কিন্তু এখন ফি সমন্বয় নিয়ে টালবাহানা করা হচ্ছে। অনতিবিলম্বে এই ফি সমন্বয় করতে হবে। নচেৎ আরো কঠোর আন্দোলন গড়ে তোলা হবে।

এদিকে প্রশাসনের অন্যদের সাথে আলোচনা করে বিষয়টি সমাধানের আশ্বাস দেন দায়িত্বরত উপাচার্য ও কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক ড. আলমগীর হোসেন ভূঁইয়া।

এদিকে একই দাবিতে সকাল সাড়ে ৯টায় বিক্ষোভ মিছিল করে ছাত্র ইউনিয়ন ইবি সংসদ। মিছিলটি দলীয় টেন্ট থেকে শুরু হয়ে প্রশাসন ভবন চত্বরে গিয়ে সংক্ষিপ্ত আলোচনা সভায় মিলিত হয়। এসময় সংগঠনটির সভাপতি মাহমুদুল হাসান, সাধারণ সম্পাদক নুর আলম, কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য মুখলেসুর রহমান সুইট, ইবি সংসদের সহ-সভাপতি উদয় দেবনাথ, সাদিয়া মাহমুদ মীম, দপ্তর সম্পাদক মনির হোসেন ও কোষাধ্যক্ষ আহমাদ গালিবসহ অন্যান্য নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

আপনার মতামত লিখুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল ও অন্যান্য তথ্য সঞ্চয় করে রাখুন

জনপ্রিয় সংবাদ

রূপগঞ্জে বস্ত্র ও পাটমন্ত্রীর নির্দেশে নির্মিত চার সড়কের উদ্বোধন।।

পেকুয়ায় বেড়িবাঁধ ভেঙে লোকালয়ে প্লাবিত,২ শত পরিবার পানিবন্দী।।

শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমান এর শাহাদাত বার্ষিকী উপলক্ষে ঠাকুরগাঁওয়ে দুস্থদের মাঝে খাবার বিতরণ ও বই প্রদর্শনী।।

ইবিতে ফি সমন্বয় নিয়ে লুকোচুরি, প্রতিবাদে বিক্ষোভ মিছিল ও মানববন্ধন।।

আপডেট সময় : 12:53:03 pm, Saturday, 2 March 2024

ইবি প্রতিনিধি।।

২০১৭-১৮ শিক্ষাবর্ষে শিক্ষার্থীদের ফি প্রায় চার গুণ বৃদ্ধি করে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় (ইবি) প্রশাসন। পরবর্তীতে শিক্ষার্থীদের আন্দোলনের মুখে বিশ শতাংশ ফি কমিয়ে তা পরের সেশনে সমন্বয় করার প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়। নির্দেশনা অনুযায়ী সমন্বয় করে ফি প্রদান করেন ২০১৭-১৮ ও ১৮-১৯ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থীরা। তবে চতুর্থ বর্ষ শেষে শিক্ষার্থীরা সনদ তুলতে গেলে বাঁধে বিপত্তি। ফি সমন্বয়ের প্রজ্ঞাপনের বিষয়টি তোয়াক্কা করছে না একাডেমিক শাখা। ফলে সমন্বয়কৃত ফি পুনরায় পরিশোধ করে সনদ নিতে হচ্ছে শিক্ষার্থীদের। এছাড়া বিভিন্ন সময়ে শিক্ষার্থীদের প্রদত্ত ফি একাডেমিক শাখার খাতায় না তোলায় একই ফি আবারো প্রদান করতে হচ্ছে বলেও অভিযোগ রয়েছে।

শনিবার (২ মার্চ) সকাল ১০টায় ফি নিয়ে কর্তৃপক্ষের এসব অনিয়মের প্রতিবাদে প্রশাসন ভবনের সামনে মানববন্ধন করেছে ২০১৭-১৮ ও ২০১৮-১৯ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থীরা। পরে বিশ^বিদ্যালয়ের দায়িত্বরত উপাচার্য ও কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক ড. আলমগীর হোসেন ভূঁইয়ার কাছে তিন দফা দাবিতে স্মারকলিপি জমা দেন তারা।

শিক্ষার্থীদের দাবিগুলো হলো- প্রজ্ঞাপন অনুযায়ী ফি সমন্বয় করা, ইতোমধ্যে যারা অতিরিক্ত ফি জমা দিয়েছে তাদের টাকা মাস্টার্সে সমন্বয় করা এবং জমাকৃত ফি একাডেমিক শাখার খাতায় লিপিবদ্ধ না করার বিষয়ে সংশ্লিষ্টদের জবাবদিহিতার আওতায় আনা।

মানববন্ধনে শিক্ষার্থীরা বলেন, ২০১৯ সালে তৎকালীন প্রশাসন তীব্র আন্দোলনের মুখে বর্ধিত ফি ২০ শতাংশ সমন্বয়ের ঘোষণা দিয়ে প্রজ্ঞাপন জারি করে। কিন্তু এখন ফি সমন্বয় নিয়ে টালবাহানা করা হচ্ছে। অনতিবিলম্বে এই ফি সমন্বয় করতে হবে। নচেৎ আরো কঠোর আন্দোলন গড়ে তোলা হবে।

এদিকে প্রশাসনের অন্যদের সাথে আলোচনা করে বিষয়টি সমাধানের আশ্বাস দেন দায়িত্বরত উপাচার্য ও কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক ড. আলমগীর হোসেন ভূঁইয়া।

এদিকে একই দাবিতে সকাল সাড়ে ৯টায় বিক্ষোভ মিছিল করে ছাত্র ইউনিয়ন ইবি সংসদ। মিছিলটি দলীয় টেন্ট থেকে শুরু হয়ে প্রশাসন ভবন চত্বরে গিয়ে সংক্ষিপ্ত আলোচনা সভায় মিলিত হয়। এসময় সংগঠনটির সভাপতি মাহমুদুল হাসান, সাধারণ সম্পাদক নুর আলম, কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য মুখলেসুর রহমান সুইট, ইবি সংসদের সহ-সভাপতি উদয় দেবনাথ, সাদিয়া মাহমুদ মীম, দপ্তর সম্পাদক মনির হোসেন ও কোষাধ্যক্ষ আহমাদ গালিবসহ অন্যান্য নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।