Dhaka , Friday, 19 July 2024
নিবন্ধন নাম্বারঃ ১১০, সিরিয়াল নাম্বারঃ ১৫৪, কোড নাম্বারঃ ৯২
শিরোনাম ::
কোটা সংস্কার আন্দোলন -ময়মনসিংহে লাঠিসোটা হাতে শিক্ষার্থীদের রাস্তা অবরোধ- বিজিবি মোতায়েন।। শরীয়তপুরে ফেসবুক লাইভে এসে ছাত্রলীগ নেতার পদত্যাগ।। আমতলীতে ২য় শ্রেণির মাদ্রাসা ছাত্রী ধর্ষণ- ধর্ষক আটক।। সিলেট জেলা কর আইনজীবী সমিতির বন্যার্তদের মাঝে ত্রাণ বিতরণ।। যাত্রাবাড়ীতে রণক্ষেত্র, টোল প্লাজায় আগুন।। শান্তিপূর্ণ পরিবেশ বজায় রাখার আহ্বান পুলিশের।। কোটা সংস্কার আন্দোলন- বিক্ষোভে উত্তাল ইবি- ছাত্রলীগের কার্যালয় ভাঙচুর।। চট্টগ্রামে কোটা সংস্কার আন্দোলনে নিহতদের স্মরণে মহানগর বিএনপির গায়েবানা জানাজা।। লালপুরে পদ্মায় গোসলে নেমে ৩ শিশু নিখোঁজ ২ জনের মরদেহ উদ্ধার।। রূপগঞ্জে মামলা তুলে না নেয়ায় বাদীর বাড়ীঘরে হামলা- ভাংচুর- আগুন ১ জনকে কুপিয়ে জখম।। রাতে পোষ্ট- ভোরে তিন যুবক গ্রেফতার।। কালিয়াকৈরে বীর মুক্তিযোদ্ধা ও সন্তানদের প্রতিবাদ সমাবেশ  অনুষ্ঠিত।। নগরীর অলিগলি হতে মুল সড়ক ব্যাটারি চালিত অবৈধ অটোরিকশার দখলে।। ফরিদপুরে কোটা সংস্কার আন্দোলনকারীদের সাথে পুলিশের ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া।। তিতাসে আ.লীগের বিক্ষোভ মিছিল ও অবস্থান কর্মসূচী অনুষ্ঠিত।। লিওনেল মেসি ভক্তরা বড় দুঃসংবাদ পেলেন।। ঢাবি হলে স্বাধীনতাবিরোধী প্রেতাত্মারা তাণ্ডব চালিয়েছে – মুক্তিযুদ্ধমন্ত্রী।। সদরপুরে মিথ্যা সংবাদ প্রকাশের বিরুদ্ধে চেয়ারম্যানের সংবাদ সম্মেলন।। কোটা সংষ্কার আন্দোলন- রামগঞ্জে ছাত্রলীগ নেতার পদত্যাগ।। পাবনায় বিদ্যুৎপৃষ্টে স্কুল পড়ুয়া ভাইবোনের মৃত্যু।। বুধবার থেকে দেশের সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠান অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ।। ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ ঘোষণা- শিক্ষার্থীদের হল ছাড়ার নির্দেশ।। কোটা আন্দোলনের নেতৃত্বে দিচ্ছে তারেক –  ওবায়দুল কাদের।। বাংলাদেশ জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে ২ বাসে আগুন।। নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত সারাদেশের সব স্কুল-কলেজ বন্ধ ঘোষণা।। নরসিংদী কোটা সংস্করণ আন্দোলন- বাস চলাচল সাময়িক বন্ধ।। চলমান পরিস্থিতি নিয়ে জরুরি বৈঠকে যে সিদ্ধান্ত নিল ইবি প্রশাসন।। কোটা সংস্কার আন্দোলনঃময়মনসিংহেও ছাত্র-ছাত্রীদের সড়ক অবরোধ।। হিলি স্থলবন্দরে আশঙ্কাজনক ভাবে কমেছে আমদানি-রফতানি বাণিজ্য- কাজ না থাকায় বিপাকে হাজার খানেক শ্রমিক-কর্মচারিরা।। সাম্যবাদী দল ও ১৪ দলীয় জোটের কেন্দ্রীয় নেতার বাড়িতে সন্ত্রাসী হামলা।।

পরিবেশ ছাড়পত্র ও ইটিপি ছাড়াই চলছে কর্ণফুলি ওয়াশিং কারখানা।।

  • Reporter Name
  • আপডেট সময় : 07:26:19 am, Sunday, 7 July 2024
  • 14 বার পড়া হয়েছে

পরিবেশ ছাড়পত্র ও ইটিপি ছাড়াই চলছে কর্ণফুলি ওয়াশিং কারখানা।।

ইসমাইল ইমন
  
চট্টগ্রাম প্রতিনিধি।।
  
  
চট্টগ্রাম নগরীর বায়জিদ বোস্তামী সড়কের নাসিরাবাদে অবস্থিত কর্ণফুলি ওয়াশিং কারখানা দীর্ঘ দিন ধরে চলছে পরিবেশ ছাড়পত্র ও ইটিপি ছাড়াই। ওয়াশিং কারখানা গুলির পরিবেশ ছাড়পত্র ও ইটিপি থাকা বাধ্যতামূলক থাকলেও কোন কিছুর তোয়াক্কা না করে কর্নফুলী ওয়াশিং কারখানা বীরদপে চালিয়ে যাচ্ছে আজ দীর্ঘ দশ থেকে বারো বছর যাবৎ। দেখে ও না দেখার মত বিভিন্ন প্রশাসন কে ম্যানেজ করে চালিয়ে যাচ্ছেন এই কর্ণফুলি ওয়াশিং কারখানা।
বন্দর শহর চট্টগ্রামের ব্যবসা বাণিজ্য দেশের অর্থনীতিতে বড় অবদান রাখছে। কিন্তু শিল্প কারখানার বর্জ্য ব্যবস্থাপনায় নিয়ন্ত্রণহীনতার কারণে পানি ও পরিবেশের দূষণ মাত্রা ছড়াচ্ছে। বিশেষত এই কর্ণফুলি ডায়িং এর বর্জ্যে পানি দূষণ চরম আকার ধারণ করেছে। এরই মধ্যে চট্টগ্রামের প্রধান দুই নদী কর্ণফুলি ও হালদার দূষণে জলজ প্রাণীদের টিকে থাকাই ঝুঁকির মুখে পড়েছে।পরিবেশ দূষণের তালিকায় এই কর্ণফুলি ডায়িং থাকলেও কোন ব্যাবস্থা নেয়া হয়না। অথচ এসব কারখানা পরিবেশের জন্য মারাত্মক হুমকির কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে।এই কর্ণফুলি কারখানার কাপড় ওয়াশ করার সময় যেসব কেমিক্যালযুক্ত তরল বর্জ্য বের হচ্ছে, সেগুলো ইটিপি ব্যবহার না করার কারণে সরাসরি ড্রেনের মাধ্যমে নগরীর বিভিন্ন খালে গিয়ে মিশছে। অনেক কারখানায় ইটিপি স্থাপনের কোনো জায়গায় নেই। এই কারখানার তরল বর্জ্য গুলো নগরীর খালে মিশে যাচ্ছে এবং কর্ণফুলী নদীতে গিয়ে পড়ছে। সাধারণত ওয়াশিং বা ডায়িং কারখানা ক্যামিকেল লাল ক্যাটাগরির হয়ে থাকে। এসব প্রতিষ্ঠানের তরল বর্জ্য পরিবেশের সঙ্গে মিশে সেটা বড় ক্ষতির কারণ হয়ে উঠছে। এই কর্ণফুলি কারখানা পরিবেশের জন্য অত্যন্ত ক্ষতিকর।এই ব্যাপারে কর্ণফুলি কারখানার মালিক শিপন এর সাথে মুঠোফোনে এই প্রতিবেদক পরিবেশের ছাড়পত্র ও ইটিপি করা আছে কিনা জানতে চাইলে তিনি বীরদপে বলেন নাই। তিনি আরেক প্রশ্নের জবাবে বলেন, আমি আজ দশ বারো বছর এইভাবে কারখানা চালিয়ে আসছি আপনি পারলে নিউজ করেন কেউ আমার কিছু করতে পারবেনা।
এই ব্যাপারে চট্টগ্রাম পরিবেশ অধিদপ্তরের পরিদর্শক মোহাম্মদ মনির হোসেন কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন- হ্যাঁ কর্ণফুলি ওয়াশিং কারখানার কোন পরিবেশের ছাড়পত্র ও ইটিপি করা নাই- আমরা এই কারখানার মালিককে অফিসিয়াল চিঠি দিয়েছি। চিঠিতে বেধে দেয়া তারিখও শেষ হয়ে গেছে। আমরা খুব দ্রুত এই ব্যাপারে পদেক্ষেপ নিচ্ছি। পরিবেশ অধিদপ্তরকে ম্যানেজ করে কারখানা চালানোর ব্যাপারে জিজ্ঞাসা করলে- তিনি বলেন এই ভদ্র লোক কে আমি চিনি ও না কখনো দেখি ও নাই বলেন। 
চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় প্রাণিবিদ্যা বিভাগের চেয়ারম্যান এবং হালদা রিভার রিসার্চ ল্যাবরেটরির কো-অর্ডিনেটর প্রফেসর ড. মো. মনজুরুল কিবরীয়া বলেন- এ তরল বর্জ্যের কারণে চট্টগ্রামের পরিবেশ বিনষ্ট তো হচ্ছেই, সঙ্গে কর্ণফুলী নদীর দূষণ বাড়ছে নিয়মিত। দূষণ কমাতে পরিবেশ অধিদপ্তরকে আরো কঠোর অবস্থানে যেতে হবে। এ তরল বর্জ্যের কারণে চট্টগ্রামের পরিবেশ বিনষ্ট তো হচ্ছেই, সঙ্গে কর্ণফুলী নদীর দূষণ বাড়ছে নিয়মিত। দূষণ কমাতে পরিবেশ অধিদপ্তরকে আরো কঠোর অবস্থানে যেতে হবে।

আপনার মতামত লিখুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল ও অন্যান্য তথ্য সঞ্চয় করে রাখুন

জনপ্রিয় সংবাদ

রূপগঞ্জে বস্ত্র ও পাটমন্ত্রীর নির্দেশে নির্মিত চার সড়কের উদ্বোধন।।

পেকুয়ায় বেড়িবাঁধ ভেঙে লোকালয়ে প্লাবিত,২ শত পরিবার পানিবন্দী।।

কোটা সংস্কার আন্দোলন -ময়মনসিংহে লাঠিসোটা হাতে শিক্ষার্থীদের রাস্তা অবরোধ- বিজিবি মোতায়েন।।

পরিবেশ ছাড়পত্র ও ইটিপি ছাড়াই চলছে কর্ণফুলি ওয়াশিং কারখানা।।

আপডেট সময় : 07:26:19 am, Sunday, 7 July 2024
ইসমাইল ইমন
  
চট্টগ্রাম প্রতিনিধি।।
  
  
চট্টগ্রাম নগরীর বায়জিদ বোস্তামী সড়কের নাসিরাবাদে অবস্থিত কর্ণফুলি ওয়াশিং কারখানা দীর্ঘ দিন ধরে চলছে পরিবেশ ছাড়পত্র ও ইটিপি ছাড়াই। ওয়াশিং কারখানা গুলির পরিবেশ ছাড়পত্র ও ইটিপি থাকা বাধ্যতামূলক থাকলেও কোন কিছুর তোয়াক্কা না করে কর্নফুলী ওয়াশিং কারখানা বীরদপে চালিয়ে যাচ্ছে আজ দীর্ঘ দশ থেকে বারো বছর যাবৎ। দেখে ও না দেখার মত বিভিন্ন প্রশাসন কে ম্যানেজ করে চালিয়ে যাচ্ছেন এই কর্ণফুলি ওয়াশিং কারখানা।
বন্দর শহর চট্টগ্রামের ব্যবসা বাণিজ্য দেশের অর্থনীতিতে বড় অবদান রাখছে। কিন্তু শিল্প কারখানার বর্জ্য ব্যবস্থাপনায় নিয়ন্ত্রণহীনতার কারণে পানি ও পরিবেশের দূষণ মাত্রা ছড়াচ্ছে। বিশেষত এই কর্ণফুলি ডায়িং এর বর্জ্যে পানি দূষণ চরম আকার ধারণ করেছে। এরই মধ্যে চট্টগ্রামের প্রধান দুই নদী কর্ণফুলি ও হালদার দূষণে জলজ প্রাণীদের টিকে থাকাই ঝুঁকির মুখে পড়েছে।পরিবেশ দূষণের তালিকায় এই কর্ণফুলি ডায়িং থাকলেও কোন ব্যাবস্থা নেয়া হয়না। অথচ এসব কারখানা পরিবেশের জন্য মারাত্মক হুমকির কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে।এই কর্ণফুলি কারখানার কাপড় ওয়াশ করার সময় যেসব কেমিক্যালযুক্ত তরল বর্জ্য বের হচ্ছে, সেগুলো ইটিপি ব্যবহার না করার কারণে সরাসরি ড্রেনের মাধ্যমে নগরীর বিভিন্ন খালে গিয়ে মিশছে। অনেক কারখানায় ইটিপি স্থাপনের কোনো জায়গায় নেই। এই কারখানার তরল বর্জ্য গুলো নগরীর খালে মিশে যাচ্ছে এবং কর্ণফুলী নদীতে গিয়ে পড়ছে। সাধারণত ওয়াশিং বা ডায়িং কারখানা ক্যামিকেল লাল ক্যাটাগরির হয়ে থাকে। এসব প্রতিষ্ঠানের তরল বর্জ্য পরিবেশের সঙ্গে মিশে সেটা বড় ক্ষতির কারণ হয়ে উঠছে। এই কর্ণফুলি কারখানা পরিবেশের জন্য অত্যন্ত ক্ষতিকর।এই ব্যাপারে কর্ণফুলি কারখানার মালিক শিপন এর সাথে মুঠোফোনে এই প্রতিবেদক পরিবেশের ছাড়পত্র ও ইটিপি করা আছে কিনা জানতে চাইলে তিনি বীরদপে বলেন নাই। তিনি আরেক প্রশ্নের জবাবে বলেন, আমি আজ দশ বারো বছর এইভাবে কারখানা চালিয়ে আসছি আপনি পারলে নিউজ করেন কেউ আমার কিছু করতে পারবেনা।
এই ব্যাপারে চট্টগ্রাম পরিবেশ অধিদপ্তরের পরিদর্শক মোহাম্মদ মনির হোসেন কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন- হ্যাঁ কর্ণফুলি ওয়াশিং কারখানার কোন পরিবেশের ছাড়পত্র ও ইটিপি করা নাই- আমরা এই কারখানার মালিককে অফিসিয়াল চিঠি দিয়েছি। চিঠিতে বেধে দেয়া তারিখও শেষ হয়ে গেছে। আমরা খুব দ্রুত এই ব্যাপারে পদেক্ষেপ নিচ্ছি। পরিবেশ অধিদপ্তরকে ম্যানেজ করে কারখানা চালানোর ব্যাপারে জিজ্ঞাসা করলে- তিনি বলেন এই ভদ্র লোক কে আমি চিনি ও না কখনো দেখি ও নাই বলেন। 
চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় প্রাণিবিদ্যা বিভাগের চেয়ারম্যান এবং হালদা রিভার রিসার্চ ল্যাবরেটরির কো-অর্ডিনেটর প্রফেসর ড. মো. মনজুরুল কিবরীয়া বলেন- এ তরল বর্জ্যের কারণে চট্টগ্রামের পরিবেশ বিনষ্ট তো হচ্ছেই, সঙ্গে কর্ণফুলী নদীর দূষণ বাড়ছে নিয়মিত। দূষণ কমাতে পরিবেশ অধিদপ্তরকে আরো কঠোর অবস্থানে যেতে হবে। এ তরল বর্জ্যের কারণে চট্টগ্রামের পরিবেশ বিনষ্ট তো হচ্ছেই, সঙ্গে কর্ণফুলী নদীর দূষণ বাড়ছে নিয়মিত। দূষণ কমাতে পরিবেশ অধিদপ্তরকে আরো কঠোর অবস্থানে যেতে হবে।