Dhaka , Saturday, 18 May 2024
নিবন্ধন নাম্বারঃ ১১০, সিরিয়াল নাম্বারঃ ১৫৪, কোড নাম্বারঃ ৯২
শিরোনাম ::
নির্বাচনী প্রচারণার সময় ককটেল বিস্ফোরনের অভিযোগে সংবাদ সম্মেলন।। সড়কের শৃংখলা নিয়ে মতবিনিময় করেছেন ওয়ারী ট্রাফিক পুলিশ।। রূপগঞ্জে উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান প্রার্থীর পক্ষে প্রচারনা।। সুন্দরগঞ্জ উপজেলা নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ালেন চেয়ারম্যান প্রার্থী সফিউল ইসলাম।। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উপলক্ষে দুর্গাপুরে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত।। আনোয়ার খাঁন মডার্ণ ডায়াগনস্টিক সেন্টার রামগঞ্জ শাখার শুভ উদ্বোধন।।  প্রধানমন্ত্রীর স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবসে ইবিতে ছাত্রলীগের আনন্দ মিছিল।। তিতাসে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা’র ঐতিহাসিক স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উপলক্ষ্যে র‌্যালী ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত।। যমুনায় সিবিএ নির্বাচন- রবিউল সভাপতি শাহজাহান সম্পাদক নির্বাচিত।। আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগের সচিব হলেন রামগঞ্জের কৃতি সন্তান আবদুর রহমান খাঁন।। মোরেলগঞ্জের পোলেরহাট বাজারে আগুনে ১১ টি দোকান পুড়ে ছাই-ক্ষতির পরিমান কোটি টাকা।। শরীয়তপুরে রাসেলস ভাইপার সাপ পিটিয়ে মারলো কৃষকরা।। ২২ বছর পর স্ত্রী হত্যা মামলায় যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত স্বামী গ্রেপ্তার।। জাজিরায় মাতৃদুগ্ধ বিষয়ে অবহিতকরণ সভা অনুষ্ঠিত।। ধামরাই সরকারি কলেজের অনার্স ৪র্থ বর্ষের শিক্ষার্থীদের বিদায় অনুষ্ঠিত।। মোরেলগঞ্জে তরুণ সংঘ ক্লাবের উদ্যোগে অধ্যক্ষ শাহাবুদ্দিন তালুকদারের স্মরণ সভা অনুষ্ঠিত।। পাবনায় ফ্যানের বাতাসে ধান উড়াতে গি‌য়ে কৃষকের মৃত্যু।। মাদারীপুরে ভোক্তা অধিকারে অভিযান- দুই ব্যবসায়ীকে জরিমানা।। মোটরসাইকেল মার্কার উৎসবমুখর উঠান বৈঠক।। নারায়ণগঞ্জ টিভি সাংবাদিক ফোরামের ১৫ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি ঘোষণা।। জাজিরা পৌর সড়কে বছর পেরোলেও আলোর মুখ দেখেনি আলোকসজ্জা প্রকল্প।। রামগঞ্জে আনারস প্রতীকের উঠান বৈঠক অনুষ্ঠিত।। পাবনায় পানি উন্নয়ন বোর্ডে -পাউবো- কর্মরত ৩৭ কর্মকর্তা-কর্মচারী একযোগে বদলি আবেদনে সমালোচনার ঝড়।। মোংলায় বীর মুক্তিযোদ্ধা আ: হামিদ শেখ কে গার্ড অব অনার।। দেবহাটায় পুষ্টি সপ্তাহ উদ্যাপন।। সখিপুর ইউনিয়ন স্ট্যান্ডিং কমিটির সভা।। দেবহাটা বাল্যবিবাহ ও নারীর প্রতি সহিংসতা রোধে সভা।।  ঘুম থেকে উঠছে দেখতাম অস্ত্র আমাদের দিকে তাককরা- নাবিক রাজু।। দাউদকান্দিতে আইফোন না পেয়ে গলায় ফাঁস দিয়ে এক কিশোরের আত্মহত্যা।। আটঘরিয়ায় হাড্ডাহাড্ডি লড়াই হবে মোটরসাইকেল-ঘোড়া।।

মাদকমুক্ত বাংলাদেশ চাই।।

  • Reporter Name
  • আপডেট সময় : 05:30:58 am, Sunday, 21 April 2024
  • 25 বার পড়া হয়েছে

মাদকমুক্ত বাংলাদেশ  চাই।।

অরবিন্দ রায়

স্টাফ রির্পোটার।।

মাদক মুক্ত বাংলাদেশ-চাই। দিনে দিনে দেশে মাদক সেবনকারীর  সংখ্যা বৃদ্ধি পেয়েছে। শহর-উপশহর-গ্রাম- গঞ্জে হাত বাড়ালেই পাওয়া যায় মাদক। বেশির ভাগ বড়লোকের বখাটে যাওয়া তরুণরা মাদক সেবার বেশি আসক্ত। সেই সাথে মধ্যবৃত্ত ও গরীবের সন্তানেরাও মাদক সেবায় জড়িয়ে পড়েছে। বাবা মা সন্তান কে নেশা টাকা দিতে না পারলে মা-বাবার ওপর সন্তান  অমানবিক নির্যাতন করে । সন্তানের অত্যাচার সইতে না পেরে অনেক মা সন্তানকে পুলিশের হাতে তুলে দেয়। আবার নেশার টাকা সন্তানকে না দেয়ায় সন্তানের হাতে মা-বাবাকে হত্যার ঘটনাও ঘটে।

প্রতিদিন  দৈনিক প্রএিকা-অলনাইন প্রএিকা-টিভি-ফেইসবুক খুললেই  মাদকের খবর  দেখতে পাওয়া যায়। এ সব তরুনরা শুরু মাদক সেবন করেই শান্ত হয় না। মাদকের টাকা সংগ্রহ করার জন্য চুরি-ছিননতাই এমন কি বিভিন্ন অপরাধমূলক কাজে জড়িয়ে পড়ছেন।  এ সব মাদক সেবীর ধর্ষণের সাথেও জড়িয়ে পড়ছেন।

 মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের তথ্যানুযায়ী দেশের মাদকাসক্তের সংখ্যা প্রায় ৫০ লক্ষ। মাদকাসক্তের শতকরা ৮০ ভাগ কিশোর ও তরুণ। মাদকাসক্তির কারনে তরুণ ও নৈতিক অবক্ষয় ঘটেছে  ফলে ধর্ষণ-চুরি-ছিনতাই সহ বিভিন্ন অনৈতিক ও অপরাধ মূলক কাজে জড়িয়ে পড়ছে।

মাদক দ্রব্য গ্রহণ করে  তরুনরা  নেশাগ্রস্ত হয়ে বিভিন্ন অপরাধ মূলক কাজে জড়িয়ে পড়ছে। দেশের যুব সমাজ যদি মাদকাসক্ত হয়ে পড়ে তবে ধ্বংস অনিবার্য হয়ে পড়বে।

দেশে হিরোইন, ফেনসিডিল, প্যাথেটিন সহ বিভিন্ন  নেশাজাতীয় দ্রব্য ও যৌন উত্তেজক বিভিন্ন জিনিস বন্ধ করতে হলে সামাজিক সচেতনতা বাড়ানো প্রয়োজন । মাদক বন্ধ  করতে পারলেই ধর্ষন কমে যাবে।

মাদক সেবনকারী-পরিবারের শএু-সমাজের   শএু-দেশের শএু। মাদক সেবনকারীদের  কোন ক্ষমা নেই, তাদের  সাথে কোন আপোষ নেই। 

দেশের মাদক দ্রব্য খুব সহজেই ছড়িয়ে পড়ছে। শহর থেকে প্রত্যন্ত গ্রামে । প্রত্যন্ত গ্রামেও হাত বাড়ালেই পাওয়া যায় মাদকদ্রব্য।
হেরোইন-কোকেন-মরফিল-প্যাথডিন-অ্যালকোহল-দেশীয় মদ-গাঁজা-ভাঙ-অফিম। এ সব মাদক সেবনের ফলে যুব সমাজ শারীরিক ও মানষিক উভয় প্রকাশ ক্ষতি  সাধন হয়। মাদকের ছোবলে অনেক তরুন হচ্ছে সর্বস্বান্ত। অনেক এলাকায় কিশোর গ্যাং সৃষ্টি হচ্ছে।

২৬ শে জুন গ্রামে গ্রামে আন্তর্জাতিক মাদক বিরোধী দিবস  পালন করে জনগনকে সচেতন করতে হবে।আমরা মাদকমুক্ত যুব সমাজ চাই । মাদক নয়, মৃত্যু নয়, মাদক মুক্ত যুব সমাজ গড়ে তুলতে হবে।

দেশের মাদক দ্রব্য খুব সহজেই ছড়িয়ে পড়ছে। শহর থেকে প্রত্যন্ত গ্রামে ছড়িয়ে পড়ছে। প্রত্যন্ত গ্রামেও হাত বাড়ালেই পাওয়া যায় মাদকদ্রব্য।
হেরোইন, কোকেন, মরফিল, প্যাথডিন, অ্যালকোহল, দেশীয় মদ, গাঁজা, ভাঙ, অফিম। এ সব মাদক সেবনের ফলে যুব সমাজ শারীরিক ও মানষিক উভয় প্রকাশ ক্ষতি  সাধন হয়।
মাদক প্রতিরোধে সরকারের পাশাপাশি স্হায়ীয় ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান, মেম্বার, শিক্ষক, বে- সরকারি সংগঠন, মসজিদের ইমাম, জন প্রতিনিধি, পিতা মাতা, এলাকার সচেতন মানুষসহ সকল শ্রেণি পেশার মানুষ কে মাদক প্রতিরোধে এগিয়ে আসতে হবে।

আপনার মতামত লিখুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল ও অন্যান্য তথ্য সঞ্চয় করে রাখুন

জনপ্রিয় সংবাদ

রূপগঞ্জে বস্ত্র ও পাটমন্ত্রীর নির্দেশে নির্মিত চার সড়কের উদ্বোধন।।

পেকুয়ায় বেড়িবাঁধ ভেঙে লোকালয়ে প্লাবিত,২ শত পরিবার পানিবন্দী।।

নির্বাচনী প্রচারণার সময় ককটেল বিস্ফোরনের অভিযোগে সংবাদ সম্মেলন।।

মাদকমুক্ত বাংলাদেশ চাই।।

আপডেট সময় : 05:30:58 am, Sunday, 21 April 2024

অরবিন্দ রায়

স্টাফ রির্পোটার।।

মাদক মুক্ত বাংলাদেশ-চাই। দিনে দিনে দেশে মাদক সেবনকারীর  সংখ্যা বৃদ্ধি পেয়েছে। শহর-উপশহর-গ্রাম- গঞ্জে হাত বাড়ালেই পাওয়া যায় মাদক। বেশির ভাগ বড়লোকের বখাটে যাওয়া তরুণরা মাদক সেবার বেশি আসক্ত। সেই সাথে মধ্যবৃত্ত ও গরীবের সন্তানেরাও মাদক সেবায় জড়িয়ে পড়েছে। বাবা মা সন্তান কে নেশা টাকা দিতে না পারলে মা-বাবার ওপর সন্তান  অমানবিক নির্যাতন করে । সন্তানের অত্যাচার সইতে না পেরে অনেক মা সন্তানকে পুলিশের হাতে তুলে দেয়। আবার নেশার টাকা সন্তানকে না দেয়ায় সন্তানের হাতে মা-বাবাকে হত্যার ঘটনাও ঘটে।

প্রতিদিন  দৈনিক প্রএিকা-অলনাইন প্রএিকা-টিভি-ফেইসবুক খুললেই  মাদকের খবর  দেখতে পাওয়া যায়। এ সব তরুনরা শুরু মাদক সেবন করেই শান্ত হয় না। মাদকের টাকা সংগ্রহ করার জন্য চুরি-ছিননতাই এমন কি বিভিন্ন অপরাধমূলক কাজে জড়িয়ে পড়ছেন।  এ সব মাদক সেবীর ধর্ষণের সাথেও জড়িয়ে পড়ছেন।

 মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের তথ্যানুযায়ী দেশের মাদকাসক্তের সংখ্যা প্রায় ৫০ লক্ষ। মাদকাসক্তের শতকরা ৮০ ভাগ কিশোর ও তরুণ। মাদকাসক্তির কারনে তরুণ ও নৈতিক অবক্ষয় ঘটেছে  ফলে ধর্ষণ-চুরি-ছিনতাই সহ বিভিন্ন অনৈতিক ও অপরাধ মূলক কাজে জড়িয়ে পড়ছে।

মাদক দ্রব্য গ্রহণ করে  তরুনরা  নেশাগ্রস্ত হয়ে বিভিন্ন অপরাধ মূলক কাজে জড়িয়ে পড়ছে। দেশের যুব সমাজ যদি মাদকাসক্ত হয়ে পড়ে তবে ধ্বংস অনিবার্য হয়ে পড়বে।

দেশে হিরোইন, ফেনসিডিল, প্যাথেটিন সহ বিভিন্ন  নেশাজাতীয় দ্রব্য ও যৌন উত্তেজক বিভিন্ন জিনিস বন্ধ করতে হলে সামাজিক সচেতনতা বাড়ানো প্রয়োজন । মাদক বন্ধ  করতে পারলেই ধর্ষন কমে যাবে।

মাদক সেবনকারী-পরিবারের শএু-সমাজের   শএু-দেশের শএু। মাদক সেবনকারীদের  কোন ক্ষমা নেই, তাদের  সাথে কোন আপোষ নেই। 

দেশের মাদক দ্রব্য খুব সহজেই ছড়িয়ে পড়ছে। শহর থেকে প্রত্যন্ত গ্রামে । প্রত্যন্ত গ্রামেও হাত বাড়ালেই পাওয়া যায় মাদকদ্রব্য।
হেরোইন-কোকেন-মরফিল-প্যাথডিন-অ্যালকোহল-দেশীয় মদ-গাঁজা-ভাঙ-অফিম। এ সব মাদক সেবনের ফলে যুব সমাজ শারীরিক ও মানষিক উভয় প্রকাশ ক্ষতি  সাধন হয়। মাদকের ছোবলে অনেক তরুন হচ্ছে সর্বস্বান্ত। অনেক এলাকায় কিশোর গ্যাং সৃষ্টি হচ্ছে।

২৬ শে জুন গ্রামে গ্রামে আন্তর্জাতিক মাদক বিরোধী দিবস  পালন করে জনগনকে সচেতন করতে হবে।আমরা মাদকমুক্ত যুব সমাজ চাই । মাদক নয়, মৃত্যু নয়, মাদক মুক্ত যুব সমাজ গড়ে তুলতে হবে।

দেশের মাদক দ্রব্য খুব সহজেই ছড়িয়ে পড়ছে। শহর থেকে প্রত্যন্ত গ্রামে ছড়িয়ে পড়ছে। প্রত্যন্ত গ্রামেও হাত বাড়ালেই পাওয়া যায় মাদকদ্রব্য।
হেরোইন, কোকেন, মরফিল, প্যাথডিন, অ্যালকোহল, দেশীয় মদ, গাঁজা, ভাঙ, অফিম। এ সব মাদক সেবনের ফলে যুব সমাজ শারীরিক ও মানষিক উভয় প্রকাশ ক্ষতি  সাধন হয়।
মাদক প্রতিরোধে সরকারের পাশাপাশি স্হায়ীয় ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান, মেম্বার, শিক্ষক, বে- সরকারি সংগঠন, মসজিদের ইমাম, জন প্রতিনিধি, পিতা মাতা, এলাকার সচেতন মানুষসহ সকল শ্রেণি পেশার মানুষ কে মাদক প্রতিরোধে এগিয়ে আসতে হবে।